বিয়ের ৮ মাসেই আগুনে মিথির সব শেষ

 

বিয়ের মাত্র ৮ মাসের মাথায় বগুড়ার আদমদীঘির বশিপুর গ্রামের তানজিলা মৌলি মিথি চলে গেলেন না ফেরার দেশে। বৃহস্পতিবার ঢাকার বনানীর এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে মারা গেছেন তিনি। মিথির অকাল মৃত্যুতে তার গ্রামের বাড়িসহ এলাকাজুড়ে শোকের মাতম চলছে।

শুক্রবার তার মরদেহ বাড়ি পৌঁছালে শত শত মানুষ মরদেহ দেখার জন্য বাড়িতে ভিড় জমান ও কান্নায় ভেঙে পড়েন।

জানা যায়, আদমদীঘির সান্তাহার পৌরসভার বশিপুর গ্রামের অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান মাসুদের মেয়ে তানজিলা মৌলি মিথি ঢাকার ওই টাওয়ারে একটি ট্যুরিজম কোম্পানিতে চাকরি করতেন। মিথির প্রায় আট মাস আগে ঢাকায় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসে চাকরিরত কুমিল্লার রায়হানুল ইসলামের সঙ্গে বিয়ে হয়। তারা স্বামী স্ত্রী মিরপুরে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

নিহত তানজিলা মৌলি মিথির চাচা মো. সালাউদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার মিথি ওই টাওয়ারের ১০ তলায় কর্মস্থলে ছিলেন। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তিনি আটকা পড়েন। এরপর মোবাইল ফোনে জানালেও বের করা সম্ভব হয়নি। বিকেলে তার শরীর ঝলসানো অবস্থায় ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার করে কুর্মিটোলা হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়ার কিছু পর মিথি মারা যান। তার পরিচয়পত্র দেখে মরদেহ শনাক্ত করার পর কর্তৃপক্ষ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেন।

মিরপুরে প্রথম নামাজের জানাজা শেষে শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় বশিপুর নিজ গ্রামে মরদেহ নিয়ে আসার পর বাদ জুম্মা তার দ্বিতীয় জানাজা হয়। পরে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here