বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:০৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞাপন :
বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন : ০১৯৭৭ ৫ ৯৯৯ ৮১, ০১৯৭৭ ৫ ৯৯৯ ৮২ ।  বিজ্ঞাপন দিন ই-মেইলে, পেমেন্ট করুন বিকাশে। বিকাশ (পারসোনাল) : ০১৯১২ ৩০ ৫০ ১৯, ই-মেইল : likhon199947@gmail.com
সংবাদ শিরোনাম :
Confusing word (ইংরেজির কিছু কনফিউজিং শব্দ) গোরস্তানে যে ৫টি কাজ করা নিষিদ্ধ ধার-কর্জ দেয়ার সাওয়াব ও ফজিলত মাটন নেহারি রাঁধবেন যেভাবে যে কারণে মানুষের নেক আমল নষ্ট হয়ে যায় নতুন পোশাকে আসছে স্পাইডারম্যান আজ বিশ্ব মানবাধিকার দিবস বিশ্বনাথের মাহি আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম বেসরকারি ডেন্টাল কলেজে ভর্তি শুরু ৩ জানুয়ারি দুশ্চিন্তা করলে হাত ঘামে কেন? দুধ খেলে ওজন কমে না বাড়ে? লক্ষ্মী নারায়ণ স্কুলের সহঃপ্রধান শিক্ষকের হাতে তুলে দেয়া হলো এডুকেশন নিউজের এই সংখ্যাটি নারায়ণগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চলছে বার্ষিক পরীক্ষা প্রেমে মজেছেন ইমন-সারিকা ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে চীনা প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ
বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতাকে আলাদা করা যাবে না : স্পিকার

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতাকে আলাদা করা যাবে না : স্পিকার

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব যে কোন পরিস্থিতি বুদ্ধিমত্তা, ধৈর্য ও সাহস নিয়ে দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবেলা করতেন। বাংলার মানুষের মুক্তি সংগ্রামে প্রতিনিয়তই তিনি বঙ্গবন্ধুকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা এক অবিচ্ছেদ্য সত্তা, এ সত্তাকে কখনই পৃথক করা যাবে না। স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় বঙ্গমাতার অবদান অনস্বীকার্য। তিনি বুদ্ধিমত্তা, ধৈর্য ও রাজনৈতিক প্রজ্ঞার যে দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন, তা যুগে যুগে বাঙালি নারীদের জন্য অনুপ্রেণার উৎস হয় থাকবে।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৮তম জন্মবার্ষিকীতে বুধবার উইমেন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্ক, বাংলাদেশ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘বাঙালির মুক্তি সংগ্রামে ফজিলাতুন্নেছা মুজিব’ শীর্ষক আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন। বক্তব্য রাখেন ফজিলাতুন নেসা বাপ্পী এমপি, সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার অধ্যাপক গোলাম রহমান, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ, সকালের খবর এর সম্পাদক আজিজুল ইসলাম ভূইয়া।

শিরীন শারমিন বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের রোগে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, কারাগারে আটক নেতাকর্মীদের খোঁজ-খবর নেয়া ও পরিবার-পরিজনদের যে কোনো সংকটে পাশে দাঁড়াতেন তিনি।

ফজিলাতুন নেসা বাপ্পী বলেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন নিবেদিত প্রাণ সহধর্মিণী, মমতাময়ী মা, দক্ষ সংগঠক এবং দূরদৃষ্টি সম্পন্ন এক মহিয়সী নারী। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও পারিবারিক বিপর্যয়ে বুদ্ধিমত্তা দিয়ে মোকাবেলা করতেন।

সভাপতির ভাষণে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের রাজনৈতিক প্রজ্ঞার পরিচয় পাওয়া যায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের আগেকার পরিস্থিতি বিশ্লেষণে। তখন বিভিন্ন জন বাসায় এসে বিভিন্ন কথা বলছিলেন। বঙ্গমাতা বললেন,‘ কারো কথায় নয়, তোমার মন যা বলে তুমি তাই বলবে। এতদিন ধরে তুমি যে রাজনীতি করেছো, যাদের জন্য জীবনে এত কষ্ট করেছো, শুধু তাদের কথা মনে রেখো।’

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের সহ-সভাপতি শাহনাজ মুন্নী। সঞ্চালনা করেন উইমেন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্ক-এর সাধারণ সম্পাদক আঙ্গুর নাহার মন্টি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Education News.
Design & Developed BY M/S PRINCE ENTERPRISE