নারায়ণগঞ্জের বন্দরে আসছেন ‘ঢেলে দেই’ হুজুর

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে আসছেন তরুণদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয় আলোচিত ইসলামি বক্তা মুফতি গিয়াসউদ্দীন আত-তাহেরী। ‘খাবেন?’ ‘ঢেলে দেই?’ ‘ভাই পরিবেশটা সুন্দর না? ‘কোনো হইচই আছে?’ এই শব্দগুলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর পরই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসেন আলোচিত এই ইসলামী বক্তা।

বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) ও শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) বন্দরের কুতুববাগ দরবার শরীফের ওরছ শরীফ ও বিশ্ব জাকের ইজতেমায় ওয়াজ মাহফিলে আসবেন তিনি।

তাহেরীর ওয়াজে দেখা যায় তিনি বক্তব্যের শুরুতেই মজা করেন উপস্থিতিদের সঙ্গে। ‘কেউ কথা কইয়েন না, একটু চা খাব? খাই একটু? আপনারা খাবেন? ঢেলে দেই? ঢেলে দেই? … ‘ভাই পরিবেশটা সুন্দর না? কোনো হইচই আছে? আমি কি কাউকে গালি দিয়েছি? কারোর বিরুদ্ধে বলতেছি? এরপরও সকালে একদল লোক বলবে, তাহেরী ভালা না’ এই শব্দগুলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর পরই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসেন আলোচিত এই ইসলামী বক্তা।

দাওয়াতে ঈমানী বাংলাদেশ নামের একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুফতী মুহম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত তাহেরী। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে জিকিরের সময় নেচে-গেয়ে ‘বসেন বসেন, বইসা যান’ বলায় সমালোচিত হন তাহেরী।

গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর মুফতি মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত-তাহেরীর বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতি ও মূল্যবোধের ওপর আঘাত সৃষ্টির অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়।

কুতুববাগ দরবার শরীফের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কুতুববাগ দরবার শরীফের ওরছ শরীফ ও বিশ্ব জাকের ইজতেমায় ওয়াজ নছিহত করবেন হযরত সৈয়দ মোহাম্মদ সাদিক রেজা মোজাদ্দেদী ও সৈয়দ হযরত জাকির শাহ কুতুববাগী পীর কেবলাজান। এ সময় আর ও উপস্থিত থাকবেন, মাওলানা সৈয়দ মোহাম্মদ তাহের শাহ মুজাদ্দেদী, মো. আতাউর রহমান মিয়াজী, মুফতি গিয়াসউদ্দীন আত-তাহেরী, মুফতি আবুল কালাম আজাদ, মাওলানা হেলাল উদ্দীন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, তাহেরীর বিষয়ে ওয়াজ মাহফিলে অশ্লীল কথা ও অশ্লীল ভঙ্গি করার বিষয়টি মন্ত্রণালয় ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরে আসার পর থেকে দেশের কয়েকটি জেলায় তার ওয়াজ মনিটরিং করার জন্য মৌখিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here